‘ড্রাইভিং লাইসেন্স বাংলায় দেওয়ার নির্দেশ’

ড্রাইভিং লাইসেন্স বাংলায় দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ রবিবার (২২ আগস্ট) সড়ক পরিবহন অধিদপ্তরে এলেঙ্গা-হাটিকামরুল-রংপুর চার লেন সড়ক নির্মাণ প্রকল্পের চুক্তি সই অনুষ্ঠানে ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে দেয়া বক্তব্যে তিনি এ নির্দেশ দেন।

তিনি বলেন, ড্রাইভিং লাইসেন্স কেন ইংরেজিতে দিতে হবে? চালকদেরও দাবি ড্রাইভিং লাইসেন্স যেন বাংলায় দেওয়া হয়। তিনি আরও বলেন, দ্রুত ড্রাইভিং লাইসেন্স দেয়ার ব্যবস্থা করতে হবে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষকে (বিআরটিএ)। গাজীপুর থেকে রাজধানীমূখী বাস র‌্যাপিড ট্রানজিটকে গলার কাঁটা হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এটিকে তিনি গাজীপুর-উত্তরবঙ্গের গেটওয়ে উল্লেখ করে বলেছেন, এটি নতুন করে বাড়ানোর দরকার নেই। যা আছে সে পর্যন্ত শেষ করতে হবে দ্রুত।

গাজীপুর এলেঙ্গা সড়কের প্রসঙ্গে সড়ক মন্ত্রী প্রশ্ন রেখে বলেন, আর কতদিন লাগবে এটি শেষ হতে। যে প্রকল্প পরিচালক পারবে না, তাকে পরিবর্তন করারও নির্দেশ দেন এ সময়। তিনি বলেন, এই সড়কের ২৩ টি সেতু, তিনটি ফ্লাইওভার, আন্ডার পাসের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অথচ মূল সেতুর নির্মাণ কাজ এখনো শেষ হয়নি। ভিডিও প্রেজেন্টেশন আর কথা বাদ দিয়ে কাজ করার পরামর্শ দেন তিনি। যশোর-খুলনা মহাসড়ক নির্মাণ কাজ শেষ না হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটি নিয়ে অনেক বাজে অভিযোগ রয়েছে, নানা কথা শুনতে হচ্ছে। এমন কী প্রধানমন্ত্রী নিজেও অভিযোগ করেছেন। অথচ এ সড়কের কাজ শেষ হচ্ছে না।

ভোগান্তি কমিয়ে দ্রুত গাজীপুর থেকে এলেঙ্গা সড়ক, যশোর খুলনা মহাসড়ক, বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট নির্মাণ কাজ শেষ করার পাশাপাশি বিআরটি’র প্রকল্পসমূহ যথাসময়ে শেষ করার নির্দেশ দেন তিনি। এসব কাজের গুণগত মান বজায় রাখতে হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি। ওবায়দুল কাদের বলেন, সড়ক খাতে সরকার এত ব্যয় করেও বদনামের ভাগিদার হচ্ছে। সময়মত কাজ শেষ না হলে, কী লাভ এত ব্যয় করে। চুক্তি সই হওয়া এলেঙ্গা-হাটিকামরুল-রংপুর চার লেন সড়ক নির্মাণ প্রকল্প সময় মতো শেষ করারও নির্দেশনা দেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve + 18 =